,


ঝড় তুলে সাকিবের বিদায়

ক্রীড়া ডেস্ক: ১৮৩ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর তাড়া করতে নেমে ২২ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে কোণঠাসা হয়ে যায় হায়দরাবাদ। তৃতীয় উইকেটে কেন উইলিয়ামসনের সঙ্গে ৪৯ রানের জুটি গড়ে দলকে চাপমুক্ত করেন সাকিব আল হাসান। উইলিয়ামসন-সাকিবের মধ্যকার জুটিকে আর লম্বা হতে দেননিকরন শর্মা। তার গুগলির শিকারে পরিনত হওয়ার আগে ১৯ বলে ২ বাউন্ডারি ও একটি ওভার বাউন্ডারির সাহায্যে ২৪ রান করে ফেরেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব। দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দিতে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। তাকে সঙ্গ দিচ্ছেন ইউসুফ পাঠান। এই রির্পোট লেখা পর্যন্ত হায়দরাবাদের সংগ্রহ ১৫ওভারের খেলা শেষে ১১৭রান। ৭৪ রান নিয়ে ব্যাট করছেন উইলিয়ামসন।

হায়দরাবাদের জয়ে প্রয়োজন ৩০ বলে ৬৬ রান।

এর আগে রাইডুর ৩৭ বলে ৭৯ ঝড়ো ইনিংস ও সুরেশ রায়নার অনবদ্য অর্ধশতের ওপর ভর করে তিন উইকেটে ১৮২ রান সংগ্রহ করে চেন্নাই সুপার কিংস। সাকিব আল হাসানদের সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে এ চ্যালেঞ্জিং স্কোর দাঁড় করায় ধোনী বাহিনী।

আজ রোববার হায়দরাবাদের রাজীব গান্ধি ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে টসে হেরে আগে ব্যাটিংয়ে নামে চেন্নাই সুপার কিংস। বল হাতে কোনো কারিশমা দেখাতে পারেননি বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। চার ওভারে ৩২ রান খরচ করেও উইকেটের দেখা পাননি তিনি।

শুধু সাকিবই নয়, রোববার আইপিএলের ২০তম ম্যাচে হায়দরাবাদের কোনো বোলারই তেমন সফলতা পাননি। তবে প্রথম দিকে সাকিবদের পূর্ণ নিয়ন্ত্রণেই ছিল। প্রথম ১০ ওভারে দুই উইকেটে সংগ্রহ ছিল মাত্র ৫৪ রান। দলের এমন বাজে অবস্থা থেকে দলকে টেনে নিয়ে যান রায়না ও রাইডু। শেষদিকে আফগান স্পিনার রশিদ খান, সাকিব ও ভুবেনেশ্বর কুমারদের রীতিমতো তুলোধুনে করে চেন্নাইকে ১৮২ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়ে দেন রাইডু-রায়নারা। ইনিংসের শুরুর দিকে ৩২ রানে দুই ওপেনার শেন ওয়াটসন এবং ডু প্লেসিসের উইকেট তুলে নিয়ে চেন্নাইকে এক ঘরে করে রাখেন ভুবেনেশ্বর ও রশিদ খান।

ভুবেনেশ্বর কুমারের বলে ক্যাচ তুলে দিয়ে সাজঘরে ফিরে গেছেন শেন ওয়াটসন। ১১ রান করে রশিদ খানের লেগ স্পিনে কাবু চলীত আইপিএলে প্রথম খেলতে নামা ফাফ ডু প্লেসিস। উইকেটে তুলে নেয়ার এই ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে না পারায় একের পর এক বাউন্ডারি হাঁকিয়ে যান রায়না-রাইডু। তৃতীয় উকেটে ৫৭ বলে ১১২ রানের জুটি গড়ে দলকে চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়ার পথে নিয়ে যান তারা। রান আউটের ফাঁদে পরার আগে ৩৭ বলে ৯ চার ও ৪ ছক্কায় ৭৯ রান করে ফেরেন রাইডু। তার বিদায়ের পরও ব্যাটিং তাণ্ডব অব্যাহত রাখেন রায়না। ইনিংসের শেষ পর্যন্ত খেলে ৪৩ বলে ৫৪ রান করে অপরাজিত থাকেন চেন্নাইয়ের এ তারকা ক্রিকেটার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Archive Calendar

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০