রাজশাহী,,

নিজের অপকর্ম ঢাকতে বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছেন এস.আই বশির

নিজেস্ব প্রতিনিধি : রাজশাহী মহানগরীর মতিহার থানার এস.আই বশিরের বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত রয়েছে বলে এলাকাবাসীর অভিযোগের ভিত্বিতে রাজশাহীর স্থানীয় পত্রিকা ও কয়েকটি অনলাইন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হওয়াতে বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছেন মতিহার থানার এস.আই বশির । অপরাধ করে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ দেওয়াকে কেন্দ্র করে খোদ পুলিশ সদস্যদের মধ্যে কানা ঘোষা শুরু হয়েছে ।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক পুলিশ সদস্যরা বলেন, মতিহার থানার এস.আই বশিরের বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ীদের সহযোগিতার অভিযোগ’ শিরোনামে একাধিক অনলাইন নিউজ পোর্টাল ও রাজশাহীর স্থানীয় পত্রিকায় খবরটি পরেছি ।
গতকাল থেকে দেখছি রাজশাহীর স্থানীয় একটি পত্রকিায় বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানাচ্ছেন যেটি আমাদের ১৮/২০ বছরের চাকুরি জীবনের এই প্রথম দেখা।

জানাযায়, গত (১৩ ফেব্রুয়ারী) মঙ্গলবার দৈনিক রাজশাহীর আলো পত্রিকায় মতিহার থানার এস.আই বশির উক্ত সংবাদটির একটি প্রতিবাদ দেন। প্রতিবাদে বলা হয়, মতিহার থানার এস.আই বশিরের বিরুদ্ধে সংবাদটি সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। একটি স্বার্থ সিদ্ধিনাসি মহল স্বার্থ হাসিলের উদ্দেশ্যে অপপ্রচার করে বেড়াচ্ছে। সেখানে তিনি উল্লেখ করেছেন, দৈনিক রাজশাহীর আলো ও রাজশাহীর সময় অনলাইন নিউজ পোর্টালে তার বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে। প্রতিবাদে তিনি তথ্য গোপন করেছেন বলে জানা গেছে। উক্ত দুই পত্রিকা ছাড়াও দৈনিক উপচার ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল রাজশাহী নিউজ ২৪ ডট কম পত্রিকাতেও তার বিরুদ্ধে সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে। এ দুটি পত্রিকার নাম গোপন করার অর্থই হলো, এককভাবে তিনি একটি সাংবাদিকের দিকে আঙ্গুল দেখিয়েছেন। এছাড়াও মতিহার থানার ওই এসআই উক্ত সাংবাদিকের বিরুদ্ধে অপপ্রচার করাসহ সংবাদ বন্ধ করার লক্ষে মতিহারের স্থানীয় বিএনপি নেতাদের দারস্থ হচ্ছেন।

উল্লেখ্য, আরএমপির গৃহিত অভিযোগপত্রে বলা হয়েছে, মতিহার থানায় শত শত মাদক ব্যবসায়ী আছে যা সম্পর্কে পুলিশ অবগত। এসকল মাদকের মূল হোতা মুক্তারের ছেলে আলমগীর হোসেন আলো ও তার সহযোগি ইমরানের ছেলে আক্কাস। আলোর ছোট ভাই পালা , ভাতিজা নাজিমের ছেলে জামাল। এছাড়া ডাসমারীর মালেক ও তার দুই ছেলে হাবিল ও কাবিল। মিজানের মোড়ের ইয়াসিন, রবিউল, আক্কাস, আক্তার, মনিরুল ও আসলাম (দুই ভাই), মিঠু, শহীদ, কাদো, চম্পা। আজিজুলের মোড়ে মাদক ডিলার বিলুর ছেলে আকতার। তারা নিজস্ব এলাকায় দাপটের সাথে মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। এরা সবাই এসআই বশিরের সহযোগিতায় এসব কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে বলে অভিযোগ পত্রে উল্লেখ করা হয়েছে।

অভিয়োগ পত্রে উল্লেখ করে এলাকাবাসি আরো বলেন, ওই এসআই থানায় আছে দীর্ঘ আনুমানিক ২০ বছর যাবত রয়েছেন। তবে নির্ধারিত সময় হলে অন্য থানায় যেতে হয় তাকে। কিন্তু মাদক ব্যবসায়ীদের টানে এখানেই বার বার ফিরে আসেন তিনি। মাদক ব্যবসায়ীদের সাথে উঠা-বসা, খাওয়া-দাওয়া ইত্যাদি তার নিত্যনৈমিত্তিক ঘটনা। তার জোকসাজসে আলো ও আক্কাস নিয়মিত মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে।

এছাড়া তিনি থাকাকালিন এসকল অপরাধীদের আটক করতে তেমন সুবিধাও করতে পারছেনা মতিহার থানা। জানা যায়, চলতি বছরের জানুয়ারিতে বি:ক্ষ: আইনে মিজানের মোড়ের মাদক ব্যবসায়ী আক্কাস ও তার সহযোগির বিরুদ্ধে আদালতে চূড়ান্ত রিপোর্ট দাখিল করেছেন পুলিশ। চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীদের গোপন আতাতের মাধ্যমে মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়া হয় মাদক নিমূল করা সম্ভব হবেনা বলেও জানান এলাকাবাসী। ইতোপূর্বে রাজশাহীর স্থানীয় দৈনিক গনধ্বনি প্রতিদিন পত্রিকায় তার বিরুদ্ধে মাদক সংক্লান্ত খবর পরিবেশ হয়েছে।

এছাড়া, তিনি মতিহার থানায় এএসআই থাকাকালীন সময় মাদকের বিভিন্ন স্পটে চাঁদা উঠানোর অভিযোগে তৎকালিন পুলিশ কমিশনার তাকে ক্লোজও করেছিলেন। তাছাড়া মোটর সাইকেলযোগে মাদক ব্যবসায়ীসহ মাদক পারাপার, স্কুল মোড়ের নদীর ধার দিয়ে আলো ও আক্কাসের নৌকা ভর্তি ফেন্সিডিল উঠানোর একাধিক ঘটনা রয়েছে। কিন্তু রক্ষক নামধারী এসআই ভক্ষকের বিরুদ্ধে কিছু বলার সাহস পাচ্ছেনা এলাকার লোকজন। শেষে নগরীর পুলিশ কমিশনার বরাবর এলাকাবাসীর পক্ষে অভিযোগ পত্র দাখিল করেন এলাকার এক সচেতন নাগরিক। উক্ত অভিযোগ পত্রে ২০জন এলাকাবাসীর স্বাক্ষর ছিল। তিনি তার এসব কর্মকান্ডের সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থার অনুরোধ জানান তারা ।

এ বিষয়ে মতিহার থানার এস.আই বশিরের সাথে তার মোবাইল ফোনে কথা বলার জন্য একাধিক বার ফোন দিলে তিনি ফোন রিসিভড করেিনি ।
তবে আরএমপি পুলিশের সহকারী পুলিশ কমিশনার মোঃ ইফতে খায়ের আলম বলেন, ব্যাক্তিগতভাবে যে কেউ তার বিজ্ঞাপন দিতে পারেন তেবে সার্ভিসের বিষয়ে কিছু বাধা নিষেধ আছে বলে জানান তিনি ।

Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



প্রকাশক ও সম্পাদক: ড. আবু ইউসুফ সেলিম
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: নুরে ইসলাম মিলন
বার্তা সম্পাদক : ফাহমিদা আফরীণ
প্রধান প্রতিবেদক: এস.এম.আব্দুল কাজিম

মিয়াপাড়া কেজি স্কুলের উত্তরে, রাজশাহী।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোবাইল ০১৭১২-৭৮৭৯৮৫
বার্তা কক্ষ:- অফিস ০৭২১-৭৭২৬০৬
মোবাইল:- ০১৭১৯-৯৩২৮৯৯
Email : upochar.news@gmail.com
www.dailyupochar.com
https://www.facebook.com/pg/DailyUpochar

Design & Developed BY