রাজশাহী,,

“রাজশাহীতে আ’লীগের ঠাঁই কোনদিন হয়নি, আর হবেও না”

নিজস্ব প্রতিনিধি: রাজশাহীর মাটি বিএনপি’র ঘাটি উল্লেখ করে বক্তার বলে, রাজশাহীতে আওয়ামী লীগের ঠাঁই কোনদিন হয়নি, ভবিষ্যতেও হবে না। কঠোর আন্দোলন করে নেত্রী কারাগার থেকে মুক্ত করা হবে বলে। রাজশাহী মহানগর বিএনপি আয়োজিত বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমারেন বিরুদ্ধে সাজা প্রদানের প্রতিবাদে অবস্থান কর্মসুচিতে এসব কথা বলেন। আজ মঙ্গলবার বেলা ১১টায় নগরীর মালোপাড়াস্থ বিএনপি অফিসের সামনে প্রধান সড়কে অবস্থান কর্মসুচি পালন করা হয়।

সভায় উপস্থিত বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদল ও স্বেচ্চাসেবক দলের নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, গণতন্ত্রকে কারাগারে পাঠিয়ে শেখ হাসিনা একনায়কতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করার স্বপ্ন দেখছে। তিনি ছাত্রলীগ ও শিক্ষামন্ত্রীকে দিয়ে প্রশ্নপত্র ফাঁস করে শিক্ষাকে ধ্বংশ করছে। দেশকে মেধাশুন্য করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে এই অবৈধ সরকার বলে তারা জানান। এছাড়াও ছাত্রলীগের কর্মীরা নারী নির্যাতন, ধর্ষন অব্যাহত রেখেছে। তাদের অত্যাচারে শিক্ষার্থীরা ভীত হয়ে পড়েছে। ছাত্রীরা নির্বিঘ্নে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যেতে পারছে না। অথচ শেখ হাসিনা এই নামধারী ছাত্রলীগকে প্রশ্রয় দিচ্ছে এবং অপকর্ম করিয়ে কোট কোটি হাতিয়ে নিচ্ছে। অথচ এই স্বেরাচারী অবৈধ সরকারের প্রধান শেখ হাসিনা হাজার হাজার কোটি টাকা লোপাট করে রাখলেও তার বিচার না হয়ে মিথ্যা মামলায় বেগম জিয়াকে সাজা প্রদান করেছে।

বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির ত্রাণ ও পূণর্বাসন বিষয়ক সহ-সম্পাদক ও মহানগর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক, মহানগর বিএনপি’র সভাপতি ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র বুলবুল বলেন, বেগম জিয়াকে বাদ দিয়ে কোন নির্বাচন এই দেশে হতে দেওয়া হবেনা। সুষ্ঠু নির্বাচন হলে খুনি হাসিনার পতন অনিবার্য উল্লেখ করে তিনি বলেন, স্বাস্থ্য ব্যবস্থা আজ ধ্বংশের পথে। আর স্বাস্থ্যমন্ত্রী একের পর এক বেগম জিয়ার নামে বিভিন্ন স্থানে মিথ্যাচার করে যাচ্ছেন। মিথ্যাচার থেকে বিরত থেকে নিজেদের দিকে নজর দেওয়ার আহবান জানান।

তিনি বলেন, এক বাড়িতে নানা ধর্মের লোক। শেখ হাসিনা কোন ধর্ম পালন করেন তা এখন মানুষের মুখে মুখে। শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্য করে মেয়র বলেন সংসদ ভেঙ্গে দিয়ে নির্বাচন কমিশনের নিকট ক্ষমতা হস্তান্তর করে নির্বাচনে আসুন। বিএনপিকে লাগবেনা ছাত্রদল ও যুবদলই বুঝিয়ে দেবে নির্বাচন কাকে বলে। পুঠিয়া রাজবাড়ি সুন্দর করা হলেও পুরাতন কারাগার সংস্কার না করে তিনবারের সফর প্রধানমন্ত্রীকে প্রানে মেরে ফেলার জন্য এই জরাজীর্ন কারাগারে রাখা হয়েছে বলে তিনি জানান।

বিএনপি নেতা মিলন বলেন, সময় ঘনিয়ে আসছে। বিএনপি’র আন্দোলনে কেউ পালানোর পথ খুঁজে পাবেনা বলে তিনি হঁশিয়ারী দেন। অনির্বাচিত এই সরকার নির্বাচনকে ভয় পায় বলে বাংলাদেশে বাকশাল কায়েম করার পাঁয়তারায় লিপ্ত রয়েছে এই অগণতান্ত্রিক সরকার। কিন্তু সেই আমল আর নেই। বাংলার মানুষ এখন বুঝতে শিখেছে বলে তিনি উল্লেখ করে। তিনি আজকের অনশন কর্মসূচী সফলভাবে পালন করার জন্য নেতাকর্মীদের আহবান জানিয়ে বক্তব্য শেষ করেন।

এসময় প্রধান বক্তা ছিলেন, বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক শাহিন শওকত। বিশেষ অতিথি ছিলেন, বাগমারা আসনের সাবেক সংসদ সদস্য অধ্যাপক আব্দুল গফুর, বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সহিদুন্নাহার কাজি হেনা ও সংরক্ষিত আসনের সাবেক এমপি জাহান পান্না।

অন্যদের মধ্যে বোয়ালিয়া থানা বিএনপি’র সভাপতি সাইদুর রহমান পিন্টু, রাজপাড়া থানা বিএনপি’র সভাপতি শওকত আলী, মতিহার থানা বিএনপি’র সভাপতি আনসার আলী, শাহমুখদম থানা বিএনপি’র সভাপতি মনিরুজ্জামান শরীফ, বোয়ালিয়া থানা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক রবিউল আলম মিলু, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মতিন, শাহমখদুম থানা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি মাসুদ, মতিহার থানা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক খাজদার আলী, রাজপাড়া যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শহিদ আলম, বোয়ালিয়া থানা বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক ইকবাল হোসেন দিলদার, শাহমখদুম থানা বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক জুবায়ের আহমেদ বাবু, রাজপাড়া থানা বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক মুরাদ পারভেজ পিন্টু।

আরো উপস্থিত ছিলেন, কেন্দ্রীয় যুবদলের সাবেক সভাপতি ওয়ালিউল হক রানা, রাজশাহী মহানগর যুবদলের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ সুইট, জেলা যুবদলের সভাপতি মোজাদ্দেদ জামানী সুমন, মহানগর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান রিটন, মহানগর যুবদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুল হাসনাইল হিকল, জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম সমাপ্ত, সাংগঠনিক সম্পাদক নুরুজ্জামান টিটু, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহ্বায়কবৃন্দ জাকির হোসেন রিমন, আখতার হোসেন, রিপন, পরাগ, আব্দুল ওয়াদুদ বাবলু আনন্দ কুমার, যুবদল নেতা রতন, রাজশাহী মহানগর তাঁতী দলের সভাপতি আরিফুল শেখ বনি, সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান, রাজশাহী মহানগর মহিলা দলের যুগ্ম আহ্বায়িকাবৃন্দ এ্যাডভোকে রওশন আরা পপি, অধ্যাপিকা সখিনা খাতুন , নুরুন্নাহার বেগম, জরিনা বেগম, মুসলেমা বেলী, রোজী, পুতুল, শিখা, ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ইলিয়াস বিন কাসেম, মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি আসাদুজ্জামান জনি, সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রবি, সিনিয়র সহ-সভাপতি মোর্তজা ফামিম সহ রাজশাহী মহানগর বিএনপি’র ৩৭টি ওয়ার্ডের সকল অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

Share

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



প্রকাশক ও সম্পাদক: ড. আবু ইউসুফ সেলিম
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: নুরে ইসলাম মিলন
বার্তা সম্পাদক : ফাহমিদা আফরীণ
প্রধান প্রতিবেদক: এস.এম.আব্দুল কাজিম

মিয়াপাড়া কেজি স্কুলের উত্তরে, রাজশাহী।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোবাইল ০১৭১২-৭৮৭৯৮৫
বার্তা কক্ষ:- অফিস ০৭২১-৭৭২৬০৬
মোবাইল:- ০১৭১৯-৯৩২৮৯৯
Email : upochar.news@gmail.com
www.dailyupochar.com
https://www.facebook.com/pg/DailyUpochar

Design & Developed BY