,


মারের ভয় দেখিয়ে পিয়াসকে সমকামীতে বাধ্য করতো বহিস্কৃত যুবলীগ নেতা সুমন

দৈনিক উপচার পত্রিকায় সমকামী সেই যুবকের দেয়া ভিডিও সাক্ষাতকার

নূরে ইসলাম মিলন : রাজশাহী মহানগর যুবলীগের বহিস্কৃত যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুল হক সুমনের বিকৃত যৌন সম্পর্কের সুমনের সমকামী পিয়াস(১৪)কে মারের ভয় ও অর্র্থের বিনিময়ে প্রতিনিয়ত সমকামীতে বাধ্য করতো বহিস্কৃত যুবলীগ নেতা সুমন। গত৭ এপ্রিল দৈনিক উপচার পত্রিকার এই প্রতিবেদকের সাথে দেয়া সাক্ষাতকারে এমনটি বলেছেন তিনি। পিয়াস নগরীর আরডিএ মার্কেটের একটি কাপড়ের এর দোকানের কর্মচারী।

পিয়াস জানান, সে যেই কাপড়ের দোকানে কাজ করতো সেই দোকানে কাজ করতো শিরোইল কলোনী ৩নং গলি এলাকার মুন্নার ছেলে সোহাগ হোসেন(২২) নামের এক বড়ভাই। তার মাধ্যমেই প্রথম তৌহিদুল হক সুমনের বাসায় যায় সে। সে সময় সুমন সোহাগকে তার একটি কাজে বাড়ির বাইরে পাঠিয়ে দেয়। পরে চর থাপ্পর মারধোর ও টাকার লোভ দেখিয়ে খারাপ কাজ (সমকামীতে) বাধ্য করে তাকে। এর পর থেকে সুমনের সামনে পড়লেই সুমন তার বাসায় নিয়ে যেত আমায়। কখনো ১০০ আবার কখনো ৫০০ টাকাও দিত আমাকে। সুমনের এমন ঘটনাটি একদিন বড়ভাই সোহাগকে বললে সে বলে সুমন এবার তার বাসায় ডাকলে আমায় নিয়ে যাবি। তবে তৌহিদুল হক সুমন সোহাগকে বিষয়টি বলতে বারন ও তাকে সাথে নিয়ে আসতে নিষেধ করেছিল। একদিন সোহাগ আমার সাথে তৌহিদুল হক সুমনের বাসায় যায়। এ সময় সুমন সোহাগের সামনে আমার সাথে খারাপ কাজ,সমকামীতায় মেতে উঠলে সোহাগ মোবাইলে ছবি দেখার নামে আমাদের ভিডিও করেন। এর পরে কয়েকদিনের মাথায় তৌহিদুল হক সুমন ও আমার সমকামীতার নোংরা ভিডিওটি ফেসবুকে ছেড়ে দেয়।

পিয়াস আরো বলেন, আমাকে প্রথম যখন এমন নোংরা কাজ করতে বাধ্য করায় তখন আমি অনেক কষ্ট পেয়েছিলাম । আমি চায় তৌহিদুল হক সুমনের যেন বিচার হয়।

 

কথা বলার জন্য নগরীর শিরোইল কলোনী ৩নং গলি এলাকার মুন্নার ছেলে সোহাগ হোসেন(২২) এর খোঁজ করা হলে তার মা আকলিমা বেগম বলেন, গত ১২ এপ্রিল থেকে তার সন্তান নিখোঁজ হয়ে আছে। তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। সন্তানের খোঁজ-খবর পাওয়ার জন্য তার মা বিভিন্ন স্থানে যোগাযোগ করেও এখন পর্যন্ত তার সন্তানের কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি। তিনি আরো বলেন, নগরীর চন্দ্রিমা থানায় রাজশাহী মহানগর যুবলীগের বহিস্কৃত যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুল হক সুমনের নামে একটি অভিযোগ করতে গেলে পুলিশ ওই অভিযোগটি না নিয়ে সাধারণ ডায়েরি (জিডি) হিসেবে নথিভূক্ত করেছে। তবে তার ছেলে নিখোঁজের পেছনে যুবলীগ নেতা সুমনকেই দায়ী করেছেন বলেও জানান তিনি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক রাজশাহী মহানগর যুবলীগের একাধিক নেতারা বলেন, বিষয়টি আমরা পরিস্কার, যে ভিডিওটি আপনাদের কাছে আছে সেটি তৌহিদুল হক সুমনের ভিডিও। সুমনের এমন বিকৃত যৌনাচার আমাদের ভাবিয়ে তুলেছে। দলের এমন একটি দায়িত্বে থাকা নেতার এমন কাজ কোন ভাবেই দল মেনে নেবে না। এমন ঘৃণিত ব্যক্তিদের নিয়ে দল ভারি করার দরকার নাই। যাদের কারণে দলের নাম বদনাম হয়, মানুষ কষ্ট পায়, ভয় পায় তাদেরকে আওয়ামী লীগের মতো ঐতিহ্যবাহী দলে কোন প্রয়োজন নাই বলে জানান তারা।

তারা তৌহিদুল হক সুমনের এমন বিকৃত যৌনাচারে লিপ্তের প্রমান মিললেও কেন তার বিরুদ্ধে সাংগাঠনিক ব্যাবস্থা নেয়া হচ্ছেনা বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

এ বিষয়ে জানতে রাজশাহী মহানগর যুবলীগের সভাপতি রমজান আলীর মোবাইল ফোনে একাধিকবার ফোন করেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

 

সুমনের সমকামী সেই যুবকের দেয়া ভিডিও সাক্ষাতকার

মারের ভয় দেখিয়ে পিয়াসকে সমকামীতেবাধ্য করতো বহিস্কৃত যুবলীগ নেতা সুমন দৈনিক উপচার পত্রিকায় সুমনের সমকামী সেই যুবকের দেয়া ভিডিও সাক্ষাতকার

Posted by Nure Islam Milon on Thursday, May 10, 2018

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Archive Calendar

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১