,


পুঠিয়ায় আইনশৃঙ্খলা সভায় জনদুর্ভোগ নিয়ে সওজের বিরুদ্ধে বিস্তর অভিযোগ

পুঠিয়া প্রতিনিধি: রাজশাহীর পুঠিয়ায় আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় সড়কে জনদূর্ভোগ নিয়ে সড়ক ও জনপদ বিভাগের বিরুদ্ধে বিস্তর অভিযোগ তুলে বক্তব্য দিয়েছেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা। এছাড়াও সভায় বাল্যবিবাহ, চুরি ও মাদকের বিস্তার নিয়ে উন্মুক্ত আলোচনা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সভা কক্ষে সভাটি অনুষ্ঠিত হয়।

সংস্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে, পুঠিয়া সদরে অবস্থিত ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়কটি সংস্কার করেছে রাজশাহী সড়ক ও জনপদ বিভাগ (সওজ)।

তবে সংস্কার কাজ চলা অবস্থায় মহাসড়কের দুই পাশের ফুটপাত দিয়ে ছোট বড় যানবাহন চলাচলের ব্যবস্থা করে সওজ। এতে দুই পাশের ফুটপাতের সড়কটি ভেঙ্গে ছোট বড় খানাখন্দের সৃষ্টি হয়। খানাখন্দ ঢাকতে সওজের কর্মচারীরা ছোট বড় গর্তে মাটি ফেলে ভরাট করে। পৌরসভার মেয়র রবিউল ইসলাম রবি আইনশৃঙ্খলা সভায় সড়ক ও জনপদ বিভাগের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে বলেন, চলতি বর্ষা মৌসুমে মাটি দিয়ে ভরাট করা স্থানগুলোতে বৃষ্টির পানি জমে কাদার সৃষ্টি হয়েছে এবং মহাসড়ক থেকে ফুটপাতের সড়কটি অনেক নিচু হওয়ায় মহাসড়কের সমস্ত পানি ফুটপাতে এসে জমা হচ্ছে।

তবে ফুটপাতের পানি নিষ্কাষনের ব্যবস্থা না থাকায় ফুটপাতের সড়কটি পুকুরে পরিনত হয়েছে। এতে ফুটপাতে চলাচলরত পথচারী ও ছোট ছোট যানবাহন চলাচলে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। প্রায়ই ছোট বড় দূর্ঘটনার স্বীকার হচ্ছে সাধারন মানুষ। তিনি বলেন, এনিয়ে পৌরসভার পক্ষ থেকে সড়ক ও জনপদ বিভাগের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তারা এর স্থায়ী সমাধানের ব্যপারে কোন সদুত্তর দেয়নি। এমনকি পৌরসভার পক্ষ থেকে চলমান দূর্ভোগের অস্থায়ী সমাধানের উদ্দ্যোগ নিলেও বিভিন্ন বাঁধার সম্মুক্ষিন হতে হয়েছে।

এ ব্যপারে সওজের সহযোগীতা চাওয়া হলেও তাদের কোন সহযোগীতা পাওয়া যায়নি বলেও অভিযোগ করেন মেয়র। সড়কে চলমান দূর্ভোগ এড়াতে এবং জলাবদ্ধতা দুর করতে পৌরসভার পক্ষ থেকে কার্যকরি পদক্ষেপ নেয়ার উদ্দ্যোগ নেয়া হয়েছে এজন্য তিনি প্রশাসনের সহযোগীতা কামনা করেন। প্রশাসনের পক্ষ থেকেও দূর্ভোগ এড়াতে সকল সহযোগীতার আশ্বাষ দেয়া হয়েছে। এছাড়াও উপজেলায় চুরি, বাল্যবিবাহ ও মাদক ব্যবসা রোধ করতে কার্যকরি ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ ওলিউজ্জামান। সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, উপজেলা চেয়ারম্যান জি এম হিরা বাচ্চু।

মতামত ব্যক্ত করেন, বেলপুকুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বদিউজ্জামান, বানেশ্বর সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ এস এম একরামুল হক, রাজশাহী জেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহসান উল হক মাসুদ, সদস্য অধ্যক্ষ গোলাম ফারুক, পৌর আ.লীগের সাধারন সম্পাদক শাহরিয়ার রহিম কনক, পুঠিয়া থানার উপ-পরিদর্শক সাজ্জাদ হোসেন, বেলপুকুর থানার উপ-পরিদর্শক কবির হোসেন প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Archive Calendar

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১