,


দুর্নীতিমুক্ত শিক্ষাঙ্গনের দাবিতে রাস্তায় রাবি শিক্ষকরা

রাবি প্রতিনিধি : দুর্নীতি ও সন্ত্রাসমুক্ত শিক্ষাঙ্গনের দাবি জানিয়ে প্রতিবাদী র‌্যালি ও মানববন্ধন করেছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মূল্যবোধে বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের একাংশ।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ সিনেট ভবনের পাশে প্যারিস রোডে ধারাবাহিক কর্মসূচির অংশ হিসেবে তাঁরা এ কর্মসূচি করেন।

এতে বাংলা বিভাগের অধ্যাপক সফিকুন্নবী সামাদী বলেন, কয়েকদিন আগে আমি ঢাকা গিয়েছিলাম, এক বন্ধু আমাকে জিজ্ঞেস করল, তোদের ওখানে প্রফেসর নিয়োগে রেট কত, কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োগে রেট কত? সেদিন আমি লজ্জায় মাথা নুইয়েছিলাম, কারণ আমি জানি যে বিশ্ববিদ্যালয়ে এসব চলছে। উপাচার্য, উপ-উপাচার্য, কোষাধ্যক্ষ এদের নেতৃত্বে যে প্রশাসন চলছে সেই প্রশাসন অর্থের বিনিময়ে নিয়োগ দিচ্ছে। তার প্রমাণও মিলেছে। অডিও ক্লিপে উপ-উপাচার্য চৌধুরী মো. জাকারিয়া বলছেন, ‘তুমি কত টাকা দিতে প্রস্তুত আছ?’ এরপরেও তিনি বহাল তবিয়তে প্রশাসনে আছেন।’

তিনি বলেন, বাংলাদেশের যেকোনো বিশ্ববিদ্যালয়ের চেয়ে এখন অনেক কম যোগ্যতা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগে। অথচ এটা অনেক উপরে ছিল। উপাচার্যের কন্যা স্নাতকোত্তরে ২২তম হয়েছিলেন। তার জামাতা স্নাতকোত্তরে ৬৩ বা ৬৭তম হয়েছেন। মাস্টার্স ডিগ্রিতে তিনি ৩.৫-ও পাননি। তাদেরকে নিয়োগ দিতে যোগ্যতা কমিয়েছেন তিনি।

মানববন্ধনে ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক সৈয়দ মু. আলী রেজার সঞ্চালনায় বাংলা বিভাগের অধ্যাপক সফিকুন্নবী সামাদী এবং শরীরচর্চা শিক্ষা বিভাগের সহকারী পরিচালক মো. কামরুজ্জামান বক্তব্য দেন। এ সময় রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক এস এম এক্রাম উল্যাহ, জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক শাহরিয়ার জামান, প্রাণরসায়ন ও অনুপ্রাণবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক জাহাঙ্গীর আলম সাউদ, মনোবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক মুজিবুল হক আজাদ খান, আইন ও ভূমি প্রশাসন বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক বিশ্বজিৎ চন্দ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। মানববন্ধন শেষে শিক্ষকেরা ক্যাম্পাসে প্রতিবাদী র‌্যালি করেন।

Archive Calendar

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০