,


কোনো রান না দিয়ে হ্যাটট্রিকসহ ৬ উইকেট!

ক্রীড়া ডেস্ক : কোনো রান না দিয়ে ৬ উইকেট! আবার হ্যাটট্রিকও! অবিশ্বাস্য-অকল্পনীয়-অবিস্মরণীয়। অঞ্জলি চাঁদের এ অর্জন কোনো বিশেষণই যথেষ্ট নয়। এমনটা চিন্তা করতে পেরেছেন কেউ, কখনো? অঞ্জলি চাঁদ করে দেখিয়েছেন।

সোমবার নেপালের পোখরায় এসএ গেমসের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল মালদ্বীপ ও নেপাল নারী ক্রিকেট দল। টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে অনুষ্ঠিত হওয়া এ ম্যাচে অতিথি দলকে কি লজ্জাটাই না দিল নেপাল! ১৬ রানে তাদের অলআউট করে নেপাল জিতেছে মাত্র ৫ বলে, সবকটি উইকেট হাতে রেখে।

মেয়েদের টি-টোয়েন্টিতে এর থেকেও কম রানে অলআউট (৬ রানে অলআউট হয়েছিল মালি) এবং এর থেকেও বড় ব্যবধানে জয়ের রেকর্ড (১০ উইকেট ও ১১৬ বল) আছে। কিন্তু অঞ্জলির মতো ধারাবাহিক ও ক্ষুরধার বোলিং করেননি কেউ।

হ্যাটট্রিকসহ ৬ উইকেট নিয়েছেন। দেননি কোনো রান। মেয়েদের টি-টোয়েন্টির সেরা বোলিং ফিগার এটিই। এর আগে মালয়েশিয়ার মাস এলিসা ৩ রানে নিয়েছিলেন ৬ উইকেট।

অষ্টম ওভারে বোলিংয়ে আসেন অঞ্জলি। তার বোলিংয়ে আসার আগেই ১৫ রানে ৪ উইকেট নেই মালদ্বীপের। প্রথম ওভারে অঞ্জলির পকেটে ৩ উইকেট। দ্বিতীয়, চতুর্থ ও ষষ্ঠ বলে ৩ উইকেট পান এ নেপালি ক্রিকেটার। নবম ওভারের শেষ দুই বলে ২ উইকেট। দশম ওভারের প্রথম বলে উইকেট নিয়ে ‍পূর্ণ করেন হ্যাটট্রিক। মেয়েদের ক্রিকেটে এটি ১৪তম হ্যাটট্রিক।

নেপালের বোলিং তান্ডবে মালদ্বীপের ৯ ক্রিকেটার রানের খাতা খুলতে পারেননি। সর্বোচ্চ ৯ রান করেন হামজা নিয়াজ। ৪ রান করেন হাফসা আবদুল্লাহ। লক্ষ্য তাড়ায় ৫ বলে ৩ চার মেরে দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যান কাজল শ্রেষ্ঠা।

প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলতে নেমে ভিন্ন কিছুর স্বাদ পেলেন অঞ্জলি চাঁদ। দেখার বিষয় আগামী দিনগুলোতে তার পারফরম্যান্স কেমন থাকে।

Archive Calendar

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১