,


ওজন কমানোর ভরসা ‘ডিটক্স ডায়েট’

উপচার ডেস্ক : বাড়িতে চলছিল উৎসব কিংবা কাছের কারোর বিয়ের আয়োজন। আর তাই পেট পুরে জম্পেশ খাওয়া-দাওয়া হয়েছে কদিন। ফলাফল শরীরে জমেছে বাড়তি মেদ। ওজন কমানোর জন্য তো ব্যায়ামের বিকল্প নেই। তার সঙ্গে প্রয়োজন গোছানো খাদ্যতালিকা। 

প্রাকৃতিক উপায়ে ওজন কমাতে চাইলে বেছে নিতে পারেন ডিটক্স ডায়েটকে। কী, কিছুটা অচেনা লাগছে? চলুন তবে এই ডায়েট সম্পর্কে সবিস্তারে জেনে নিই- 

ডিটক্স ডায়েট কী? 

যে প্রক্রিয়ার মাধ্যমে দেহের অতিরিক্ত টক্সিন বা বর্জ্য পদার্থ বের করে দেওয়া হয় তাকে ডিটক্সিফিকেশন বলা হয়। হজমে সহায়ক অঙ্গ-প্রত্যঙ্গকে বিশ্রামে রেখে শরীর থেকে টক্সিন বের করে দেওয়াই ডিটক্স ডায়েটের মূল লক্ষ্য। 

পানি, ফলের রস জাতীয় খাবার বেশি থাকে এই ডায়েটে। কেন না, বেশি পরিমাণ পানি পান করলে সহজেই শরীরের বর্জ্য বাইরে বেরিয়ে আসে। অনেকে এই ডায়েটে তিন/চার ঘণ্টা ফাস্টিং করেন বা উপোষ থাকেন। 

তিন থেকে পাঁচ দিন ডিটক্স ডায়েট মেনে চললেই ভালো ফল পাবেন। তবে একটানা এই ডায়েট বেশি দিন না করার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা। হঠাৎ জমা চর্বি কমাতে অল্প কদিন এটি মেনে চলাই যথেষ্ট। এই ডায়েটে ডিটক্স ওয়াটার পান করতে হবে। সে সঙ্গে জোর দিতে হবে নির্দিষ্ট কিছু খাবারে। 

কীভাবে তৈরি করবেন ডিটক্স ওয়াটার? 

রাতে এক লিটার পানির সঙ্গে মিশিয়ে নিন ২ চা চামচ আদা কুচি, একটি শসা কুচি, ২ ইঞ্চি দারুচিনি, একটি লেবুর রস ও খানিকটা মধু। পরদিন সকালে এই পানি ছেঁকে সঙ্গে আরও ৩ লিটার পানি মেশান। সারাদিন এই পানি পান করুন।

আর কী কী খাবেন?

ডিটক্স ডায়েট করলে খাদ্যতালিকায় রাখুন আপেল, পেয়ারা, নাশপাতি, তরমুজ, বেদানা, আনারস জাতীয় ফল। প্রতিদিন একটি করে ডাব খেতে পারেন। 

সবজির তালিকায় বেশি রাখবেন লাউ, গাজর আর পেঁপে। ডিটক্স হিসেবে লাউয়ের রস বেশ উপকারী। তাই ঘুম থেকে উঠে লাউয়ের রস খেতে পারেন। একটি পাত্রে লাউ কুরিয়ে তা চিপে রস বের করে নিন। এবার এতে মেশান লেবুর রস আর এক চিমটি লবণ। 

এই ডায়েটে কার্বসের পরিমাণ কম রাখবেন। পেট ভরাতে খেতে পারেন ডালিয়া, বাজরার রুটি। তবে তা খেতে হবে অল্প পরিমাণে। খাদ্য তালিকায় রাখতে পারেন স্মুদিও। সন্ধ্যার নাস্তায় রাখুন ডাল কিংবা ভেজিটেবল স্যুপ। তবে কর্নফ্লাওয়ার ব্যবহার করবেন না যেন। 

শশা, টমেটো আর গাজর দিয়ে তৈরি করতে পারেন সালাদ। হালকা খিদে দূর করতে ভরসা রাখুন ফ্ল্যাক্স সিডস, সানফ্লাওয়ার সিডস, বাদাম ইত্যাদির ওপর। ক্লান্তি লাগলে শক্তি ফিরে পাবেন। 

এসবের পাশাপাশি ৩/৪ লিটার পানি কিন্তু অবশ্যই পান করতে হবে। এই তালিকায় রাখতে পারেন ফলের রসও। এই পানিই দেহ থেকে ক্ষতিকর বর্জ্য বের করে আনতে সাহায্য করে। 

Archive Calendar

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১